শনিবার, মে ২৫, ২০২৪
No menu items!
বাড়িখেলাধুলাআউট না হয়েও উঠে গেলেন মিরাজ, এবার শান্তর সেঞ্চুরি

আউট না হয়েও উঠে গেলেন মিরাজ, এবার শান্তর সেঞ্চুরি

আফগান বোলারদের নিয়ে রীতিমত ছেলেখেলা করেছেন মেহেদি হাসান মিরাজ আর নাজমুল হোসেন শান্ত। ওপেনিংয়ে নেমে মিরাজ করেছেন সেঞ্চুরি। এবার শান্তও ছুঁয়েছেন তিন অংকের ম্যাজিক ফিগার।

তার আগেই অবশ্য উঠে গেছেন মিরাজ। শান্তর সঙ্গে জুটিতে ১৯৪ যোগ করে রিটায়ার্ট হার্ট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফিরেছেন এই অলরাউন্ডার। এর পরপরই সেঞ্চুরি পূরণ করেছেন শান্ত। ১০১ বলে শতরান পূরণ করেন এই বাঁহাতি। শান্তর ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ওয়ানডে সেঞ্চুরি এটি।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৪৩.১ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ২৬৩ রান। শান্ত ১০২ আর মুশফিকুর রহিম ৩ রানে অপরাজিত আছেন।

এমনিতে ব্যাটিং পান সাধারণত ৭, ৮ বা ৯ নম্বর পজিশনে। লোয়ার অর্ডার ব্যাটার হিসেবেই পরিচিতি মেহেদি হাসান মিরাজের। তবে দলের প্রয়োজনে এর আগে ওয়ানডেতে ওপেন করেছেন। লিটন দাসকে নিয়ে গড়েছিলেন শতরানের জুটি।

আরও একবার মিরাজ ওপেনিংয়ে সুযোগ পেলেন, আবারও করলেন বাজিমাত। ওয়ানডে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করেছিলেন একদম নিচের দিকে, ৮ নম্বরে নেমে। দ্বিতীয় সেঞ্চুরিটা এলো ওপেনিংয়ের মতো কঠিন পজিশনে। মিরাজ তার ব্যাটিং সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন তোলার আর জায়গাই রাখলেন না।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে আজ (রোববার) ১১৫ বলে তিন অংকের ম্যাজিক ফিগার ছুঁয়েছেন মিরাজ। তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ওয়ানডে সেঞ্চুরি।

বাঁচামরার ম্যাচ। আজ হারলেই এশিয়া কাপ শেষ হয়ে যাবে বাংলাদেশের। এমন কঠিন সমীকরণ মাথায় নিয়ে আফগানিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নেমেছে টাইগাররা।

 

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টসভাগ্য সহায় হয়েছে সাকিব আল হাসানের। প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

ওপেনিংয়ে চমক। নাইম শেখের সঙ্গে ইনিংস উদ্বোধন করতে নামেন মেহেদি হাসান মিরাজ। ৪৭ বলে জুটিতে ফিফটি পূরণ করেন এই দুজন। ১০ ওভারে হয় ৬০ রানের জুটি। নাইম শেখকে বোল্ড করে ওপেনিং জুটি ভাঙেন মুজিব উর রহমান। নাইম ৩২ বলে ৫ বাউন্ডারিতে করেন ২৮ রান।

পরের ওভারে আরও একটি উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ। নাজমুল হোসেন শান্তর বদলে তিন নম্বরে নামেন তাওহিদ হৃদয়। সুবিধা করতে পারেননি। নিজের মুখোমুখি হওয়া দ্বিতীয় বলেই স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন হৃদয় (০)। তার উইকেটটি নেন গুলবাদিন নাইব।

ব্যাটিংটা তিনি ভালোই পারেন। ওয়ানডেতে আছে সেঞ্চুরিও। তবে দলের প্রয়োজনে নিচের দিকেই বেশিরভাগ ব্যাটিং করতে হয় মেহেদি হাসান মিরাজকে। আবার দলের প্রয়োজনে ওপেনিংয়ে নেমেও অতীতে করেছেন বাজিমাত।

আরও একবার মিরাজ সুযোগ পেলেন ওপেনিংয়ে। ১০ ওভার পার করে ওপেনিংয়ে শুধু ৬০ রানের জুটি গড়াই নয়; মিরাজ হাঁকিয়েছেন দুর্দান্ত এক ফিফটি। ৬৫ বলে হাফসেঞ্চুরি পূরণ করেন ডানহাতি এই ব্যাটার। এটি তার ক্যারিয়ারের তৃতীয় ফিফটি।

নাজমুল হোসেন শান্তও তার দুর্দান্ত ফর্ম ধরে রেখেছেন। আগের ম্যাচে চাপের মুখে ৮৯ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে ফিফটি হাঁকিয়েছেন বাঁহাতি এই ব্যাটার। আফগান পেসার ফজলহক ফারুকিকে ছক্কা হাঁকিয়ে ফিফটি পূরণ করেন শান্ত।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
আরো দেখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

মানবতার সেবায় কালিয়াকৈর গ্রুপ

টিভিতে আজকের খেলা